সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৮:১০ অপরাহ্ন




রেফারি আমাদের বিপক্ষে ছিলেন: মেসি

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২২ ৮:০৫ am
Argentina Argentine Footballer Lionel Andrés Messi আর্জেন্টিনা তারকা লিওনেল মেসি
file pic

আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডস ম্যাচে বড় প্রভাব রেখেছেন রেফারি অ্যান্তোনিও মাতেও লাহোজ। কথায় কথায় হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন তিনি। অন-ফিল্ড প্লেয়ার, সাইডবেঞ্চে বসে থাকা খেলোয়াড় কিংবা ডাগআউটে দাঁড়ানো কোচ- কেউই বাদ পড়েনি লাহোজের হলুদ কার্ড থেকে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছিল যে, দর্শকদের কার্ড দেখানোর সুযোগ থাকলে হয়তো সেটিও করতেন এই স্প্যানিশ রেফারি। ম্যাচশেষে অ্যান্তোনিও লাহোজের কড়া সমালোচনা করেছেন লিওনেল মেসিরা।

কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তেজনায় পরিপূর্ণ ম্যাচে নেদারল্যান্ডসকে টাইব্রেকারে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। ম্যাচে মাঠের খেলোয়াড়দের মোট ১৫টি কার্ড দেখিয়েছেন অ্যান্তোনিও লাহোজ। দৈনিক মার্কার প্রতিবেদনে বলা হয়, এটি বিশ্বকাপের এক ম্যাচে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কার্ড দেখানোর রেকর্ড। ২০০৬ বিশ্বকাপে নেদারল্যান্ডস-পর্তুগাল ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৬টি কার্ড দেখানো হয়েছিল। ম্যাচশেষে আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসি বলেন, অ্যান্তোনিও লাহোজ পক্ষপাতী ছিলেন। তিনি নেদারল্যান্ডসের পক্ষে সিদ্ধান্ত দিচ্ছিলেন বলে মন্তব্য করেন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ।

টিওয়াইসি স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেসি বলেন, ‘অনেক আনন্দিত আমরা। প্রশান্তি অনুভূত হচ্ছে। ম্যাচে আমরা অনেক ভোগান্তিতে ছিলাম। প্রয়োজন মতো ঠিকই খেলা দেখায় আর্জেন্টিনা। যখন আমরা বল হারাই আমাদের দৌড়ের গতি বেড়ে যায়। আমাদের এই আনন্দটুকু বড্ড প্রয়োজন ছিল। আমরা ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছি। এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।’
মেসি বলেন, ‘আমি রেফারির বিষয়ে কথা বলতে চাই না। কারণ আপনি এমন কাউকে ম্যাচের দায়িত্ব দিতে পারেন না, যে এই মঞ্চের যোগ্যই নন। আমরা খুব ভালো খেলিনি। তবে রেফারিই ম্যাচটিকে অতিরিক্ত সময়ে টেনে নেয়। গোটা ম্যাচে সে আমাদের বিরোধিতা করেছে। এমনকি যে গোলটি দিয়ে সমতায় ফিরেছে তারা, সেটাও ফাউল ছিল না।’ নির্ধারিত ৯০ মিনিট ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল আর্জেন্টিনা। এরপর রেফারি ১০ মিনিট ইনজুরি টাইম যোগ করেন। সেসময়ই ফ্রি-কিক থেকে গোল পায় নেদারল্যান্ডস।

এমিলিয়ানো মার্টিনেজ বলেন, ‘এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের সবচেয়ে বাজে রেফারি। ইনজুরি টাইম ১০ মিনিট দিয়েছে সে। চাচ্ছিলো ম্যাচটি যাতে ড্র হয়। রেফারি ডি বক্সের সামনে কয়েকবার ফ্রি কিক দিয়েছে। সে চেয়েছিল নেদারল্যান্ডস যেন ম্যাচে ফেরে। অপদার্থ একটা। আশা করি সামনের ম্যাচে এমন রেফারি পাব না।’




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD