শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন




শতভাগ টেকসই জ্বালানি দিয়ে পরিচালিত হলো এমিরেটস ফ্লাইট

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ৫:৪৬ pm
Emirates Emirates Emirate aircraft airline’s airline Airbus Boeing এমিরেটস ফ্লাইট উড়োজাহাজ এয়ারলাইন ফ্লাইট
file pic

এমিরেটস এয়ারলাইন ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজের সাহায্যে একটি পরীক্ষামূলক ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। ফ্লাইটটি এই কারণে গুরুত্বপূর্ণ যে, উড়োজাহাজটির একটি ইঞ্জিনে ব্যবহৃত হয়েছে শতভাগ টেকসই এভিয়েশন জ্বালানি (SAF)। মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকা অঞ্চলে প্রথম বারের মতো পরিচালিত এই জাতীয় ফ্লাইটটি দুবাই আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে উড্ডয়ন করে দুবাইয়ের আকাশে এক ঘন্টারও বেশি পরিভ্রমণ করতে সক্ষম হয়েছে।

এই ফ্লাইটের সাফল্যের পর শত ভাগ টেকসই জ্বালানি দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনার সনদ প্রাপ্তি সহজতর হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রচলিত জেট ফুয়েলের সঙ্গে শতকরা ৫০ভাগ ঝঅঋ ফুয়েল মিশ্রণের মাধ্যমে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি রয়েছে।

SAF ফুয়েল ব্র্যান্ড এর উন্নয়নে এমিরেটস জিই অ্যারোস্পেস, বোয়িং, হানিওয়েল, নেসলে এন্ড ভাইরেন্টের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে যৌথভাবে কাজ করেছে। ল্যাবরেটোরি পরীক্ষা এবং কঠোর ট্রায়ালের পর এমন একটি ব্লেন্ড অনুপাত অর্জন করা সম্ভব হয়েছে যা গতানুগতিক জেট ফুয়েলের মতোই। পরীক্ষামূলক ফ্লাইটের একটি জিই৯০ ইঞ্জিনে SAF ফুয়েল ব্যবহার করা হয়েছে এবং অন্যটির ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়েছে সাধারণ জেট ফুয়েল।

এমিরেটস এয়ারলাইনের চিফ অপারেটিং অফিসার আদেল আল রেধা আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন, “এই জাতীয় পরীক্ষামূলক ফ্লাইটের মাধ্যমে SAF ফুয়েলের সাপ্লাই চেইনের দ্বার উন্মুক্ত হবে এবং সারা বিশ্বে এর প্রাপ্তিও সহজতর হবে। সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, এভিয়েশন শিল্পে অধিকতর ব্যবহারের জন্য এটি মূল্যের বিচারে যৌক্তিক প্রমাণিত হবে”।

দ্য বোয়িং কোম্পানির ভাইস-প্রেসিডেন্ট, কমার্শিয়াল সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং মধ্যপ্রাচ্য বলেন, “২০৫০ সাল নাগাদ এভিয়েশন শিল্পে নেটজিরো অর্জনের ক্ষেত্রে SAF গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তবে, এর জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের মধ্যে পারষ্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন হবে”।

কার্বণ এমিশন কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে এমিরেটস তার অঙ্গীকার পূরণ করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করে চলেছে। এই লক্ষ্যে এয়ারলাইনটি জ্বালানি দক্ষতা বৃদ্ধি, ঝঅঋ, স্বল্প কার্বণ সমৃদ্ধ জ্বালানি (LCAF) এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানি নিয়ে কাজ করছে। এয়ারলাইনটির উদ্যোগে সর্বব্যাপী জ্বালানি দক্ষতা কর্মসূচি পালিত হচ্ছে যার লক্ষ্য হলো, অপ্রয়োজনীয় জ্বালানির ব্যবহার এবং কার্বন এমিশন হ্রাস।

এয়ারলাইনটি ‘ফ্লেক্স ট্র্যাক্স’ অনুসরণ করছে, যা মূলত ফ্লেক্সিবল রুটিং। নেভিগেশন সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সহায়তায় এমিরেটস সবচেয়ে দক্ষ ফ্লাইট প্ল্যান গ্রহণ করে থাকে।

এমিরেটস প্রথমবার ২০১৭ সালে জেট ফুয়েলের সাথে SAF এর মিশ্রিত জ্বালানি ব্যবহার করে ফ্লাইট পরিচালনা করে। ২০২০ সালে এয়ারলাইনটি ঝঅঋ পাওয়ার্ড এয়ারবাস এ৩৮০ উড়োজাহাজের ডেলিভারি নেয় এবং একই বছরে স্টকহোম থেকে ৩২টন SAF ক্রয় ও ব্যবহার করে।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD