শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন




শহীদ মিনারকেও দলবাজির কেন্দ্রে পরিণত করা হয়েছে: ফখরুল

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ১১:৫৩ pm
Mirz-fakhrul Bangladesh Nationalist Party BNP ‎বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি Mirza Fakhrul Islam Alamgir বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর Bangladesh Nationalist Party BNP Mirza Fakhrul Islam Alamgir বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
file pic

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের মতো পবিত্র স্থানকেও দলবাজির কেন্দ্রে পরিণত করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেছেন।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, নিয়ম না মেনে প্রভাতফেরিতে ক্ষমতাসীন দলের বিভিন্ন সংগঠনকে বিএনপিসহ অন্যান্য দল ও সংগঠনের আগে যেতে দেওয়া হয়েছে। ফলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনে বিএনপিসহ অন্যান্য সংগঠনকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, সকাল সাড়ে সাতটায় নিউমার্কেট-সংলগ্ন বলাকা সিনেমা হলের সামনে থেকে প্রভাতফেরি শুরুর পাঁচ থেকে ছয় ঘণ্টা পর বিএনপির নেতা–কর্মীদের শহীদ মিনারে পৌঁছাতে এবং পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করতে হয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বারবার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও এ বিষয়ে তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছে বলে অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ করতে গিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টোরিয়াল টিমের ন্যক্কারজনক হামলার শিকার হতে হয়েছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদসহ অন্যা নেতাদের।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনও একই অভিযোগ করেছেন। দীর্ঘ অপেক্ষার পর শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমরা সকাল সাড়ে সাতটার সময় বলাকা ভবনের সামনে থেকে প্রভাতফেরির মিছিল নিয়ে এসেছি। সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের সামনে থেকে আমরা সকাল আটটা থেকে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে আছি। তারা আমাদের ইচ্ছাকৃতভাবে বিলম্বিত করেছে। মহান ভাষা দিবসেও এখানে দলবাজি হয়েছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ করছি।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বিএনপির নেতা-কর্মীরা যখন শহীদ মিনার এলাকায় পৌঁছান, তখন মাইকে ঘোষণা দেওয়া হচ্ছিল, বিএনপি ফুল দিয়ে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে। কিন্তু তাঁরা সামনে যেতে পারছিলেন না। কারণ, বিএনপির সামনে ছিল ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখাসহ মহানগর, থানা ও বিভিন্ন কলেজ শাখা কমিটির নেতা–কর্মীদের অবস্থান। ফুল দেওয়ার পরেও তাঁরা দীর্ঘ সময় সেখানে ছিলেন। ফলে সামনে এগোনোর জায়গা না পেয়ে বিএনপির প্রভাতফেরির মিছিলকে কয়েক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD