শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ১০:২৯ অপরাহ্ন




মেট্রোরেলের জন্য এডিবি’র কাছে আরও ৩০০ মিলিয়ন ডলার চায় ডিএমটিসিএল

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ৩:২২ pm
Dhaka metro rail formal test run Dhaka Metro Rail ঢাকা মেট্রোরেল মেট্রোরেলের
file pic

মেট্রোরেলের লাইন-৫ নির্মাণে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) কাছে আরও ৩০০ মিলিয়ন (৩০ কোটি) ডলার চায় নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)। দেশের প্রথম মেট্রোরেলের গাবতলী থেকে দানেশকান্দি (এমআরটি-৫ সাউদার্ন রুট) পর্যন্ত অংশ নির্মাণে ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন (৪৭০ কোটি) মার্কিন ডলার ব্যয় হবে। এর মধ্যে ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন (২৫০ কোটি) মার্কিন ডলার অর্থায়নে আগ্রহ দেখিয়েছে এডিবি।

যদিও এ প্রকল্পে সরকার বিনিয়োগ চায় ২ দশমিক ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এজন্য এডিবির কাছে আরও ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থায়নের অনুরোধ করেছে ডিএমটিসিএল কর্তৃপক্ষ। বাকি ১ দশমিক ৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থায়ন করতে চায় সরকার।

রবিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এমআরটি-৫ (সাউদার্ন) এর দ্বিতীয় কর্মশালায় এসব তথ্য জানায় ডিএমটিসিএল কর্তৃপক্ষ। অনুষ্ঠানে এডিবি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর ঝিয়াংগু মেইনের কাছে প্রতিশ্রুত অর্থের সঙ্গে অতিরিক্ত ৩০০ মিলিয়ন ডলারের অনুরোধের বিষয়টি জানান সড়ক সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী ও ডিএমটিসিএল এমডি এম এন সিদ্দিক।

ডিএমটিসিএল এমডি এম এন সিদ্দিক বলেন, এবিডি এই প্রথম মেট্রোরেলের কোনও প্রজেক্টে বিনিয়োগ করছে। এ প্রকল্পে এডিবির কাছে অনুরোধ, তাদের বিনিয়োগ আরও ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার যেন তারা বাড়ায়। এডিবির জন্য এটি বড় কোনও অর্থ নয়। আশা করি এডিবি তাদের সহায়তা অব্যাবহ রাখবে।

এডিবি-কে অতিরিক্ত অর্থ অর্থায়ন করতে অনুরোধ করে তিনি বলেন, এডিবি বর্তমানে যা অর্থ দিচ্ছে, তার থেকে অল্প কিছু বেশি দিলে পুরো প্রকল্প এডিবি’র অর্থায়নে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে। তাদের কাছে অনুরোধ, তারা যেন আরও ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করে।

এমআরটি লাইন-৫ সাউদার্ন রুট ২০৩০ সালের মধ্যে গাবতলী থেকে দাশেরকান্দি পর্যন্ত ১৭ দশমিক ৪০ কিলোমিটার মেট্রোরেল নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে পাতাল ১২ দশমিক ৮০ কিলোমিটার এবং উড়াল ৪ দশমিক ৬০ কিলোমিটার। এতে মোট ১৬টি স্টেশনের মধ্যে ১২টি পাতাল এবং চারটি উড়াল।

স্টেশনগুলো হলো- গাবতলী, টেকনিক্যাল মোড়, কল্যাণপুর, শ্যামলী, কলেজগেট, আসাদগেট, রাসেল স্কয়ার, পান্থপথ, সোনারগাঁও হোটেল, হাতিরঝিল পশ্চিম, নিকেতন, রামপুরা, আফতাবনগর পশ্চিম, আফতাবনগর মধ্য, আফতাবনগর পূর্ব, দাশেরকান্দি।

স্টেশনের নাম সমন্বয় করা এবং ভূমি অধিগ্রহণের কাজ শেষ পর্যায়ে জানিয়ে এমএন সিদ্দিক বলেন, আমরা এখন বিনিয়োগে যাবো। মেট্রোরেলে পরিবেশের ক্ষতি হবে না, যানজটের কমে আসবে, দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

এবি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, এবিডি’র অর্থায়নে এই প্রথম মেট্রোরেলের কোনও প্রজেক্টে বিনিয়োগ করছে। এ প্রকল্পে এডিবির কাছে অনুরোধ তাদের বিনিয়োগ আরও ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার যেন তারা বাড়ায়। আশা করি এডিবি তাদের সহায়তা অব্যাবহ রাখবে।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD