শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০১:০৭ পূর্বাহ্ন




ব্রয়লার মুরগি ২৬০, সবজি মেলে না ৪০ টাকার কমে

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৭ মার্চ, ২০২৩ ৯:৫৫ pm
বন্দর আমদানি বাণিজ্য import trade trade Export Promotion Bureau EPB Export Market বাণিজ্য রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো ইপিবি export shop food ভোজ্যতেল চিনি আটা vegetable Vegetables mudi dokan bazar মুদি বাজার নিত্য পণ্য দোকান mudi dokan bazar মুদি বাজার নিত্য পণ্য দোকান romzan ডলার রোজা রমজান পণ্য ভোগ্যপণ্যের আমদানি এলসি ভোগ্যপণ্য খালাস স্থলবন্দর বাজার
file pic

রাজধানীর বাজারে মাছ, মাংস ও সবজিসহ নিত্যপণ্য আগের মতোই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। সম্প্রতি হঠাৎ করে অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়া ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে বাড়তি ২৬০ দামে। এছাড়া কাঁচাবাজারে ৪০ টাকার কমে মেলে না কোনও সবজি।শুক্রবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রামপুরা বাজার ঘুরে দেখা যায়, শিম কেজিপ্রতি ৪০ টাকা, কাঁচামরিচ ১০০ টাকা, চিচিঙ্গা ৮০ টাকা, শসা ৬০ টাকা, টমেটো ৪০-৫০ টাকা, ধুন্দুল ৫০ টাকা, লম্বা বেগুন ৭০ টাকা, গোল বেগুন ৭০ থেকে ৮০ টাকা, পটল ৮০ টাকা, কচুর লতি ১০০ টাকা, পেঁপে ৪০ টাকা, করলা ১০০ টাকা, বরবটি ১২০ টাকা, ঢেঁড়স ১০০ টাকা, আকার ভেদে প্রতিটি চাল কুমড়া ৫০ থেকে ৬০ টাকা, লাউ ৫০ থেকে ৭০ টাকা, লেবুর হালিপ্রতি ৪০ টাকা, কাঁচা কলা ৪০ টাকা হালিতে বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, ব্রয়লার মুরগি কেজিপ্রতি ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা, সোনালি মুরগি ৩৫০ টাকা, গরুর মাংস ৭৫০ টাকা ও খাসির মাংস ১০৫০ টাকা থেকে ১১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ব্রয়লার মুরগির লাল ডিম একটি ১১ টাকা, হালি ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা, ডজন ১৩০ টাকা, হাঁসের ডিমের ডজন ১৯০ টাকা ও দেশি মুরগির ডিমের ডজন ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্যদিকে রুই মাছের কেজি প্রতি ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা, শোল মাছ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা, পাঙ্গাশ ১৮০ থেকে ২০০ টাকা, টাকি মাছের কেজি ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা, কাতল ২৮০ থেকে ৩২০ টাকা, শিং মাছ ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা, তেলাপিয়া ২২০ টাকা, পাবদা ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, টেংরা ৪০০ টাকা, কাঁচকি মাছ ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা, চাষের কই ২৫০ টাকা, বোয়াল আকার ভেদে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকায় কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়াও দুই কেজি ওজনের নদীর পাঙ্গাশ ৬০০ টাকা, চিংড়ি আকার ভেদে ৫০০ থেকে ৯০০ টাকা, রূপচাঁদা আকার ভেদে ৭০০ থেকে ১২০০ টাকা, ৯০০-৯৫০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ১১০০ থেকে ১২০০ টাকা, ৭০০ গ্রামের ইলিশ ৮৫০ টাকা, ৬০০ গ্রামের ইলিশ ৭৫০ টাকা, সাড়ে ৩০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ৫২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

অপরদিকে নিত্যপণ্যের বাজারে সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৮৭ টাকা, লবণ ৩৮ থেকে ৪০ টাকা, দেশি আদা কেজিপ্রতি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা, চায়না আদা ২২০ টাকা, বড় রসুনের ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা, ছোট রসুন ১২০ থেকে ১৩০ টাকা, পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, আলু ২০ থেকে ২৫ টাকা, দেশি মসুর ডাল ১৪০ টাকা, ইন্ডিয়ান মসুর ডাল ১২০ থেকে ১২৫ টাকা, খোলা চিনি ১১৫ থেকে ১২০ টাকা, খোলা আটার কেজি ৬০ টাকা, প্যাকেট আটা ৬৫ টাকা, দুই কেজির প্যাকেট আটা ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

রামপুরা কাঁচাবাজার এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, বাজারে কোনও পণ্যের দাম কমেনি। বাজার করতে গেলেই ভয় লাগে। আর শুক্রবার এলে ব্যবসায়ীরা সকল পণ্যের দাম বৃদ্ধি করে ফেলে।রামপুরা কাঁচাবাজার এলাকার সবজি বিক্রেতা  বলেন, বাজারে সবকিছুর দাম বেশি। রমজানে আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বাজারে বড় সিন্ডিকেটদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়া হলে দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD