রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩৯ পূর্বাহ্ন




২ মাস পর করোনায় ২ জনের মৃত্যু

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২ জুন, ২০২৩ ৮:৫৫ pm
Omicron ভ্যাকসিন vaccine vaccination Booster Dose কোভিড ১৯ টিকা করোনা corona covid corona covid করোনা বুস্টার ডোজ করোনাভাইরাস করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন vaccine vaccination Booster Dose কোভিড ১৯ টিকা করোনা corona covid corona covid করোনা বুস্টার ডোজ Booster করোনাভাইরাস করোনা ভাইরাস
file pic

দেশে ৬৬ দিন পর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের মৃত্যু হয়। এ সময় ৮৯ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৫১৫ জনের নমুনা শনাক্ত হয়। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৫ দশমিক ৮৭। এ সময় সুস্থ হয়েছেন ১২ জন।

করোনায় এর আগে করোনায় সর্বশেষ একজনের মৃত্যু হয়েছিল দুই মাসের বেশি সময় আগে গত ২৮ মার্চে।

দেশে এ পর্যন্ত ২০ লাখ ৩৯ হাজার ৫০৬ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ৬ হাজার ৩১৩ জন। আর মারা গেছেন ২৯ হাজার ৪৪৮ জন।

২০২০ সালের ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্তের ঘোষণা দেয় সরকার। আর করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ওই মাসের ১৮ তারিখে।

দেশে কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনা শনাক্তের হার বাড়ছে। সর্বশেষ গত ২২ থেকে ২৮ মে এক সপ্তাহে করোনা শনাক্তের হার এর আগের সপ্তাহের তুলনায় ১৩৩ শতাংশ বেড়েছে। তার আগের সপ্তাহে, অর্থাৎ ১৫ থকে ২১ মে তার আগের সপ্তাহের তুলনায় শনাক্ত বৃদ্ধির হার ছিল ৬ দশমিক ৭।

এখন করোনা শনাক্তের যে ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে, তা জুলাই পর্যন্ত চলতে পারে বলে আশঙ্কা করেন সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণাপ্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা মুশতাক হোসেন। তিনি আজ প্রথম আলোকে বলেন, গত তিন বছরের প্রবণতা বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, জুন ও জুলাই মাসে করোনা শনাক্তের প্রবণতা বাড়ে। এবারও তেমন হওয়ার আশঙ্কা আছে।

গত মাসে করোনাভাইরাসের কারণে জারি করা বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। বাংলাদেশে করোনার বিধিনিষেধ তুলে না নেওয়া হলেও বাস্তবে এটি উঠে গেছে বলেই মনে করেন মুশতাক হোসেন। তাঁর মতে, এখন পরিস্থিতির বিবেচনায় করোনা নিয়ন্ত্রণে কিছু ব্যবস্থা নিতে হবে। এর মধ্যে বিশেষ করে হাসপাতালে মাস্ক পরা, হাত ধোয়াসহ কড়াকড়ি আরোপ করতে হবে। এর কারণ হিসেবে এই জনস্বাস্থ্যবিদ বলেন, হাসপাতাল থেকেই রোগ বেশি ছড়ায়।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD