বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন




তালিকাভুক্ত তিন ব্যাংকের ২১০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২২ ৬:৪৭ pm
শেয়ার বাজার শেয়ারবাজার শেয়ারবাজার dse ডিএসই Share point সূচক অর্থনীতি economic দরপতন dse ডিএসই শেয়ারবাজার দর পতন পুঁজিবাজার CSE BSEC share market DSE CSE BSEC sharemarket
file pic

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পূবালী ব্যাংক লিমিটেড, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড (এসআইবিএল) ও ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের (আইবিবিএল) মোট ২ হাজার ১০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। একই সঙ্গে সংস্থাটি ‘গ্রামীণ ব্যাংক এইমস ফার্স্ট ইউনিট ফান্ড’-এর খসড়া প্রসপেক্টাসে অনুমোদন দিয়েছে। গতকাল বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৮৪৯তম কমিশন সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়।

সংস্থাটির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, পূবালী ব্যাংকের ৭০০ কোটি টাকার নন-কনভার্টিবল, প্রাইভেটলি প্লেসড, ফ্লোটিং রেট বিশিষ্ট তৃতীয় সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। বন্ডটির কুপন হার হবে ৬ শতাংশ থেকে ৯ শতাংশের মধ্যে। প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও উচ্চ সম্পদশালী একক বিনিয়োগকারীদের কাছে বন্ডটি ইস্যু করা হবে। এ বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ কোটি টাকা। বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে পূবালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের ব্যাংকের টিয়ার-২ মূলধনের ভিত্তি শক্তিশালী করবে।

অন্যদিকে গতকাল সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ৬০০ কোটি টাকার এসআইবিএল চতুর্থ নন-কনভার্টিবল, আনসিকিউরড, মুদারাবা সাব-অর্ডিনেটেড ফ্লোটিং রেট বিশিষ্ট বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি। এ বন্ডের মুনাফার হার শরিয়াহভিত্তিক ব্যাংকগুলোর সর্বশেষ প্রকাশিত ছয় মাস মেয়াদি আমানতের সর্বোচ্চ হার এর গড়কে রেফারেন্স রেট হিসেবে বিবেচনা করে তার সঙ্গে ২ শতাংশ মার্জিন যোগ করে ষাণ্মাসিক ভিত্তিতে নির্ধারণ করতে হবে। প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও উচ্চ সম্পদশালী একক বিনিয়োগকারীদের কাছে বন্ডটি ইস্যু করা হবে। এ বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ কোটি টাকা। বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ দিয়ে এসআইবিএল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের ব্যাংকের টিয়ার-২ মূলধনের ভিত্তি শক্তিশালী করবে।

এছাড়া এদিন ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের সাত বছর মেয়াদি ৮০০ কোটি টাকার আইবিবিএল চতুর্থ মুদারাবা রিডেমেবল নন-কনভার্টেবল, ফ্লোটিং রেট বিশিষ্ট সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যুর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। এ বন্ডের কুপন হার শরিয়াহভিত্তিক ব্যাংকগুলোর (বিদেশী ইসলামী ব্যাংক ও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জেড ক্যাটাগরি ইসলামী ব্যাংক ছাড়া) সর্বশেষ প্রকাশিত (বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে) ছয় মাস মেয়াদি আমানতের সর্বোচ্চ হার এর গড় রেফারেন্স রেট হিসেবে বিবেচনা করে তার সঙ্গে ২ শতাংশ মার্জিন যোগ করে ষাণ্মাসিক ভিত্তিতে নির্ধারণ করতে হবে। এ বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ কোটি টাকা। আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, করপোরেট ও উচ্চ সম্পদশালী একক বিনিয়োগকারীদের কাছে বন্ডটি ইস্যু করা হবে। বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে আইবিবিএল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাদের ব্যাংকের টিয়ার-২ মূলধনের ভিত্তি শক্তিশালী করবে।

একই সভায় গতকাল বে-মেয়াদি ‘গ্রামীণ ব্যাংক এইমস ফার্স্ট ইউনিট ফান্ড’-এর খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি। ফান্ডটির প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ১৫৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এর মধ্যে উদ্যোক্তা হিসেবে গ্রামীণ ব্যাংক ১০০ কোটি টাকা প্রদান করেছে। প্রি-আইপিও প্রাইভেট প্লেসমেন্টের ১৮ কোটি ১২ লাখ টাকা ও বাকি ৩৯ কোটি ৩৮ লাখ টাকা সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD