বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৪ অপরাহ্ন




লাইট হাউসের সভায় বিশেষজ্ঞদের অভিমত

নারীর প্রতি সহিংসতার ধরন ও মাত্রা ভয়াবহ রুপ নিয়েছে

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ১:৪৩ pm
USAID এনজিও লাইট হাউস ইউএসএআইডি সুখী জীবন পাথফাইন্ডার ইন্টারন্যাশনাল
file pic

নারীর প্রতি সহিংসতা একটি বৈশ্বিক সমস্যা। নারীর প্রতি সহিংসতার ধরন ও মাত্রা বর্তমান সমাজে ভয়াবহ রুপ নিয়েছে। পরিবার থেকে সমাজ সর্বক্ষেত্রে নারীকে বৈষম্য ও নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার হতে হচ্ছে। বিশ্বের প্রতিটি দেশে নারীর প্রতি সহিংসতা উদ্বেগজনক হারে বেড়েই চলেছে। বৈষম্যমূলক আচরণ পরিবর্তন, আইন ও পরিষেবার উন্নয়ন করতে সর্বোপরি নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ করার জন্য বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী পদক্ষেপ নেয়া জরুরি। একই সঙ্গে সরকারের পাশাপাশি সমাজের সর্বস্তরে সার্বিক সচেতনতা বৃদ্ধি, সবার সম্পৃক্তকরণ ও সকলের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ প্রয়োজন বলে অভিমত দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা।

রবিবার (৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর তোপখানা রোড়স্থ বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে বেসরকারি এনজিও লাইট হাউসের আয়োজনে ও ইউএসএআইডি সুখী জীবন প্রকল্প, পাথফাইন্ডার ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় মিডিয়া অ্যাডভোকেসি সভায় এসব অভিমত গণ্যমাধ্যমে তুলে ধরা হয়। লাইট হাউসের নির্বাহী প্রধান মো. হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ পরিচালক আয়েশা নার্গীস। আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সম্পাদক ফোরামের সদস্য সচিব ফারুক আহমেদ তালুকদারসহ লাইট হাউজের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ ছাড়া সভায় বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মী ও তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের ওয়েব সাইটে সম্প্রতি প্রকাশিত তথ্য, দেশে জানুয়ারি-অক্টোবর ২০২২ মধ্যে দেশে ধর্ষিত হয়েছেন ৮৩০ জন নারী, ১৪৮টি যৌন নির্যাতন, ৯৭৫টি শিশু নির্যাতন, ১৭৫ জন নারী স্বামী কর্তৃক খুন, ১২টি এসিড নিক্ষেপ, শিশু হত্যা ৪৩৯টি, ২২ গৃহকর্মী ও ১১৬টি যৌতুক সংক্রান্ত নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে ৭২টি খুনের ঘটনা রয়েছে। নারী নির্যাতনের ঘটনাবলী বিশ্লেষণে দেখা গেছে, নির্যাতন থেকে রেহাই পায়নি দুই বছরের শিশু থেকে ৭৫ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত। ১৪ থেকে ১৮ বছর বয়সী মেয়েরাই সবচেয়ে বেশী ধর্ষনের স্বীকার হয়েছেন। আরো আতংকের বিষয় হচ্ছে যুব ও তরুনরাই অভিযুক্ত হিসাবে আর্ভিভুত হচ্ছেন।

এমতাবস্থায় নারী ও শিশুসহ সকল জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধে “জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ পক্ষ উদযাপনে গত ২৫ নভেম্বর থেকে আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। ‘সবার মাঝে ঐক্য গড়ি নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধ করি’ শ্লোগানে “নারী ও শিশুসহ সকল জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে ১৬ দিনব্যাপী প্রচারাভিযান কর্মসূচি বাস্তবায়নে করবে বেসরকারি এনজিও লাইট হাউস।

সভায় জানানো হয়, নারী ও শিশুসহ সকল জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসিতার বিরুদ্ধে “১৬ দিনের প্রচারণা” জাতিসংঘ কর্তৃক স্বীকৃত আন্তর্জাতিক পক্ষ। এটি ২৫ নভেম্বর শুরু হয় এবং তা ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আন্তর্জাতিকভাবে পালিত হয় (আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসসহ)। ১৬ দিনের প্রচারণায় নারী ও শিশুসহ সকল জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা ও অপব্যবহারের নেতিবাচক প্রভাব এবং আমাদের সামাজিক কাঠামোর জন্য যে নেতিবাচক মনোভাব রয়েছে তা পরিবর্তনের জন্য ব্যাপক জনসচেতনতা বাড়ানোর প্রতি দৃষ্টি দেওয়া হয়েছে। এই কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশে লিঙ্গ ভিত্তিক সহিংসতা, নারী ও শিশুদের উপর সহিংসতা, বৈষম্যমূলক মনোভাব পরিবর্তন, প্রয়োজনীয় আইন ও পরিষেবা উন্নত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের আহবান জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, তাদের উপর যে নির্যাতন হয়, তা নারী ও শিশুদের চেয়েও বেশি। তাছাড়া নারী শিশুরা প্রতিকারের জন্য বিভিন্ন জায়গাতে অভিযোগ করতে পারেন। কিন্তু তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যরা বা হিজড়ারা এ ধরনের সুবিধা থেকে একেবারেই বঞ্চিত। তারা এ বিষয়ে সরকারের গুরুত্ব দেওয়ার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা নিয়ে নেতিবাচক মনোভাবের কারণে নারী অধিকার ও সুরক্ষা লংঘিত হয়। নারীর প্রতি সহিংসতা দূর করার জন্য পুরুষদের দৃষ্টিভঙ্গির বদলানোর পাশাপাশি মনোভাবের পরিবর্তন করার জন্য ব্যাপক জনসচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি সহিংসতা প্রতিরোধ কার্যক্রমে নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে।

উল্লেখ্য, লাইট হাউজ একটি স্বেচ্ছাব্রতী ও সমাজ সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে গ্রামীণ ও শহুরে দরিদ্র, প্রান্তিক ও উচ্চ ঝুঁকির জনগোষ্ঠী, যৌন সংখ্যালঘু, হিজড়া, যৌন কর্মী, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী, আদিবাসী এবং অন্যান্য পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর বর্তমান অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য নিবিড় ভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD