শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১০ পূর্বাহ্ন




আজান মনযোগ দিয়ে শোনা আর জবাব না দিলে যে ক্ষতি

আউটলুকবাংলা রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৩ ৮:৫০ pm
Audio অডিও masjid masazid maszid islam azan dua doa ajan আজান দোয়া আযান মাসজিদ মাসাজিদ ইসলাম phone silent ringing ring tone ring sound made telephone incoming call bells alerting bell তিলাওয়াত জিকির মোবাইল কোরআন তেলাওয়াত আজান দোয়া বাজানো মোবাইল রিংটোন
file pic

অসতর্কতার কারণে একই সময়ে ৩টি নি’আমত থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি!

১. দুয়া বা দোয়া কবুল হওয়া থেকে, ২. রাসূল ﷺ এর নিশ্চিত শাফায়াত হতে, ৩. সহজে জান্নাতে যাওয়া হতে।

>> আজান, মুসলমানদের জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সময়, অন্যতম একটি নি’আমত কারণ এই সময়ে দু’আ কবুল হয়, মনযোগ সহকারে আজান শুনে তার জবাব দিলে আল্লাহর রাসূল ﷺ এর শাফায়াত সুনিশ্চিত হয় এবং জান্নাত সহজ হয়ে যায়, সুবাহানাল্লাহ! একটু সতর্ক হোন!

>> আজানের সময়ের দু’আ প্রত্যাখ্যাত হয় না অথবা খুব কমই প্রত্যাখ্যাত হয়।
(আবু দাউদ:২৫৪০)

>> যে ব্যক্তি আজান শুনে দু’আ করে: ‘হে আল্লাহ-এ পরিপূর্ণ আহবান ও সালাতের প্রতিষ্ঠিত মালিক, মুহাম্মাদ ﷺ কে ওয়াসিলা ও সর্বোচ্চ মর্যাদার অধিকারী করুন এবং তাকে সে মাকেমে মাহমূদে পৌছিয়ে দিন যার অঙ্গিকার আপনি করেছেন’- কিয়ামতের দিন সে রাসূলুল্লাহ ﷺ এর শাফা’আত লাভের অধিকারী হবে।
(সহীহ্ বুখারী: ৫৮৭)

>> আন্তরিকতার সাথে আজানের জবাব দেয়ার কারণে সে জান্নাতে যাবে।
(সহীহ্ মুসলিম:৭৩৬)

সুতরাং আজান যখনই শুনবেন মনযোগ দিয়ে শুনুন, আন্তরিকতার সাথে আজানের জবাব দিন, আজান শেষে দু’আ করুন, ইনশা আল্লাহ দু’আ কবুল হবে। সেই সাথে জান্নাতে যাওয়াও সহজ হবে। আল্লাহ তাওফিক দিন।

IFM desk.




আরো






© All rights reserved © outlookbangla

Developer Design Host BD